থাইরয়েড গ্রন্থি কি? এটির লক্ষণ কি কি?

0
0
হরমোনঃবলা হয় এমন একটা রস কে যা দেহের গ্রন্থি থেকে বের হয়ে রক্তের সাথে মিশে যায়।
আজ আলোচনা থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে নিঃসৃত হরমোন নিয়ে।
থাইরয়েড গ্রন্থিঃ
এটি কন্ঠনালিতে অবস্থান করে।এটি দেখতে অনেকটা প্রজাপতি র মত।এখান থেকে রস বের হয়ে বিভিন্ন অংগে গিয়ে কাজ করে।
বাচ্চাদের বেলায় এই গ্রন্থির কাজ হল বাচ্চা র বেড়ে ওঠা,বুদ্ধি বেড়ে ওঠা
আর মহিলাদের ক্ষেত্রে গর্ভধারণ, মাসিক নিয়মিত হওয়া এগুলা নিয়ন্ত্রণ করে।
রক্তে এই হরমোন বেড়ে গেলে একে হাইপার থায়রায়োডিজম
আর কমে গেলে হাইপো থায়রায়োডিজম বলে।
হাইপো থায়রায়োডিজম কেন হয়ঃবেশির ভাগ জেনেটিক কারনে হয়।
আর হয় আয়োডিন এর সল্পতার কারনে কিন্তু সবাই যেহেতু এখন আয়োডাইড লবন খায় তাই জেনেটিক লিই বেশি হয়।
লক্ষনঃ
১.কোন কারন ছাড়া ওজন বেড়ে যাওয়া
২.ঘুম ঘুম ভাব/কাজে অনিহা
৩.শরিরে পানি চলে আসা।
৪,সবসময় শীত শীত লাগা।
৫.কোষ্ঠকাঠিন্য
৬.মাসিকে গন্ডগোল।
সবচেয়ে খারাপ যেটা সেটা হল,গর্ভাবস্থায় হলে বাচ্চা বিকলাঙ্গ ও হতে পারে।
শিশুদের যদি এই রোগ হয় আর তা সঠিক সময়ে নির্নয় করা না যায় তবে বেটে হতে পারে।আর যদি সঠিক সময়এ নির্নয় করে ঔষধ দেওয়া যায় তবে নির্মুল সম্ভব ইন্সাল্লাহ।
এটা একটা নিয়ন্ত্রণ যোগ্য রোগ।অনেকের ব্যাক করে অনেকের করে না।
তাই নিয়মিত ঔষধ সেবনে এটা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here