হার্নিয়া কি ? এর কারণ ও প্রকারভেদ কি কি?

0
2
হার্নিয়াঃঃ
হার্নিয়া একটি কমন রোগ আমাদের দেশে।মানুষের খাদ্যনালী মুখ থেকে পায়ু পর্যন্ত বিস্তৃত যা ২০+ফুট এর মত।পেটের একটা দুর্বল অংশ দিয়ে ক্ষুদ্রান্তের একটা অংশ অন্ডথলিতে চলে আসে।তখন কুচকি বা অন্ডথলির জায়গা ফুলে উঠে, ব্যাথা করে।ছেলেদের সাধারণত হার্নিয়া বেশি হয়ে থাকে।
তবে মহিলাদের কয়েক ধরনের হার্নিয়া দেখা দেয়
তার মদ্ধ্যে Femoral ar Umbilical hernia বেশি।
এছাড়াও আছে
**Obstructed hernia
**Strangulated hernia
ফিমোরাল হার্নিয়া টা সাধারণত উরুর উপরের অংশে হয়ে থাকে
আর আম্বিলিকাল টা নাভি প্রদেশে।
হার্নিয়ার প্রকারভেদ:
*ইঙ্গুইনাল হার্নিয়া: এই ধরনের হার্নিয়া উদর ও উরুর সংযোগস্থলে দেখা যায়।তখন ওই স্থানটি ফোলা মনে হয়।
*ইঙ্গুইনো-স্ক্রোটাল:- ইঙ্গুইনাল হার্নিয়া অবস্থায় চিকিৎসার ব্যবস্থা না নিলে ইঙ্গুইনো-স্ক্রোটাল হার্নিয়া দেখা দেয়।এই হার্নিয়া অন্ডথলিতে হয়ে থাকে।মুলত ইঙ্গুইনাল হার্নিয়ার ফলে অন্ত্রের অংশবিশেষ নামতে নামতে অন্ডথলিতে চলে আসে এবং জায়গাটি ফুলে যায়।
*আম্বিলিকাল হার্নিয়া:- এই হার্নিয়া নাভির পাশে হয়ে থাকে। এতে নাভির একপাশ বা চারপাশ ফুলে যায়।
*ফিমোরাল হার্নিয়া:- এটি হলে উরুরু ভেতরের দিকটা ফোলা মনে হয়।এটি মুলত নারীদের হয়ে থাকে।
*ইনসিসনাল হার্নিয়া:- অপারেশনের ফলে শরীরের অঙ্গগুলো দুর্বল হয়ে পড়ে।আর উরুতে অপারেশান হলে ,দুর্বল উরুতে এক ধরনের হার্নিয়া দেখা যায়,এটিই ইনসিসনাল হার্নিয়া ।
হার্কানিয়ার করনঃঃ
১.মাসল এর দুর্বলতা
২.যৌনাংগের কোন ত্রূটি
৩. বয়স্কজনিত কারন
৪.পুরাতন কাশি
৫.হার্নিয়া অংগের মাংস্পেশিতে দুর্বলতা
৬.সার্জারি
৭.প্রেগ্নেসি
৮.পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য
৯.অতিরিক্ত ওজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here